মঙ্গলবার , ২৫ জানুয়ারি ২০২২ | ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. ক্যারিয়ার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তরুণ উদ্যোক্তা
  7. ধর্ম
  8. নারী ও শিশু
  9. প্রবাস সংবাদ
  10. প্রযুক্তি
  11. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  12. বহি বিশ্ব
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. মতামত

অধ্যাপকের জন্য আনা ফেনসিডিলসহ শাবিপ্রবিতে গার্ড আটক

প্রতিবেদক
bdnewstimes
জানুয়ারি ২৫, ২০২২ ৯:০৮ পূর্বাহ্ণ


শাবিপ্রবি করেসপন্ডেন্ট

শাবিপ্রবি: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) ফেনসিডিলসহ অতিথি ভবনের জাহিদুর রহমান নামে এক গার্ডকে আটক করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। পরে এর সঙ্গে সম্পৃক্তার অভিযোগে আরও একজনসহ মোট দু’জনকে আটক করেছে শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাত সোয়া এগারোটার দিকে এই গার্ডকে আটক করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাত ১১টার দিকে ফেনসিডিল নিয়ে উপাচার্যের বাসভবনের দিকে যাওয়ার সময় তাকে আটক করা হয়। এ সময় জাহিদুরের কাছে একটি আইডি কার্ড পাওয়া যায়। ওই আইডি কার্ডে তার নাম জাহিদুর রহমান বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

আটকের পর জাহিদ নিজেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনের পাশের অতিথি ভবনের নিরাপত্তা কর্মী হিসেবে পরিচয় দেন।

ভিসির বাসভবনে বিদ্যুৎ সংযোগ ফিরিয়ে দিলো শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

 

আটক জাহিদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি বলেন, ‘একজন স্যার আমাকে বললেন এক লোক একটি ওষুধ দিবে তা এনে দিতে। ওই শিক্ষকের কথামতো আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের কাছ থেকে এক লোকের দেওয়া ওষুধ নিয়ে আসি। এটি ফেনসিডিল কিনা তা আমি জানতাম না।’

গণমাধ্যমকর্মী, পুলিশ ও তিন শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতে জাহিদুরকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের অতিথি ভবন ও ডরমেটরিতে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে অভিযুক্ত শিক্ষককে পাওয়া যায়নি। পরে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকের ছবি দেখালে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মাজহারুল হাসান মজুমদারকে শনাক্ত করেন জাহিদ।

পুলিশের উপ-কমিশনার আজবাহার আলী শেখ বলেন, ‘আমরা প্রাথমিকভাবে দেখেছি শিক্ষার্থীরা তাকে আটক করেছে। তখন শিক্ষার্থীরা তার হাতে একটি ফেনসিডিলের বোতল পায়। এতে হিন্দি ও ইংরেজিতে লেখা আছে এটি পেনসিডিল। আমরা এ ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছি। তবে কে অভিযুক্ত রয়েছেন তা মৌখিকভাবে বলা হলেও তদন্ত সাপেক্ষে তা বের হয়ে আসবে।’

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষকের বক্তব্য নিতে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

এর আগেও, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মাজহারুল হাসান মজুমদার অনলাইন ক্লাসে প্রকাশ্যে ধূমপান করে সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন। ক্যাম্পাসে তিনি উপাচার্যের ঘনিষ্ঠ শিক্ষক হিসেবে পরিচিত।

আরও পড়ুন:

সারাবাংলা/এমও





Source link

সর্বশেষ - খেলাধুলা