বুধবার , ১ নভেম্বর ২০২৩ | ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. ক্যারিয়ার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তরুণ উদ্যোক্তা
  7. ধর্ম
  8. নারী ও শিশু
  9. প্রবাস সংবাদ
  10. প্রযুক্তি
  11. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  12. বহি বিশ্ব
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. মতামত

‘একটা কিডনি নাই বিএনপি নেতা আলালের’

প্রতিবেদক
bdnewstimes
নভেম্বর ১, ২০২৩ ১১:২২ অপরাহ্ণ


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: আলাল সাহেব অসুস্থ। আগে নিজের মামলায় নিজেই শুনানি করতেন। আজও তাকে বলেছিলাম শুনানি করতে। কিন্তু অসুস্থ থাকায় শুনানি করতে পারছেন না। তার বয়স ৬৮। তার একটা কিডনি নাই— আদালতে রিমান্ড শুনানিতে অংশ নিয়ে বিএনপি নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের আইনজীবী এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন।

বুধবার (১ নভেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন মাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে রাজধানীর পল্টন থানার নাশকতার মামলায় রিমান্ড শুনানি হয়। এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পল্টন মডেল থানার সাব-ইন্সপেক্টর ফরহাদ মাতুব্বর আলালকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। পরে আদালত তাকে ৫ দিনের রিমান্ডে পাঠান।

রাষ্ট্রপক্ষে রিমান্ড শুনানি করেন ঢাকা মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু। আলালের পক্ষে সিনিয়র আইনজীবী মহসিন মিয়া, মোসলেহ উদ্দিন জসিম, ওমর ফারুক ফারুকী, গোলাম মোস্তফা খান, ইকবাল হোসেন রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। মোয়াজ্জেম হোসেন আলালও রিমান্ড বাতিল চেয়ে শুনানি করেন।

এ সময় আলালের আইনজীবী মহসিন মিয়া বলেন, ‘একটু আগে আপনার কোর্টে মির্জা আব্বাসের রিমান্ড শুনানি করেছি। আপনি রাষ্ট্রপক্ষের চাওয়া পাঁচ দিনের মধ্যে পাঁচ দিনই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এজন্য কি আমরা মুক্তিযুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছিলাম? আলাল সাহেব একজন আইনজীবী। আগে কোনো আইনজীবী গ্রেফতার হলে সবাই মিলে শুনানি করতাম। অনেক সময় জামিনও হয়েছে। তিনি অসুস্থ, একটা কিডনি নাই। বেঁচে থাকলে বিচার হবে।’

উল্লেখ্য, গত ৩১ অক্টোবর রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরের একটি বাসা থেকে মোয়াজ্জেম হোসেন আলালকে নাশকতার মামলায় গ্রেফতার করা হয়।

সারাবাংলা/এআই/পিটিএম





Source link

সর্বশেষ - খেলাধুলা