সোমবার , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. ক্যারিয়ার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তরুণ উদ্যোক্তা
  7. ধর্ম
  8. নারী ও শিশু
  9. প্রবাস সংবাদ
  10. প্রযুক্তি
  11. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  12. বহি বিশ্ব
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. মতামত

ঘন জঙ্গলেও পাওয়া যাবে GPS, বাঁচবে ব‍্যাটারি! iPhone-এ থাকবে ISRO-র তৈরি করা এই প্রযুক্তি!

প্রতিবেদক
bdnewstimes
সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২৩ ৮:২১ অপরাহ্ণ


সম্প্রতি লঞ্চ করেছে Apple-এর সর্বশেষ iPhone সংস্করণ। খুব শীঘ্রই ভারতের চেন্নাইতে তৈরি iPhone বাজারে আসবে।

Apple-এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই প্রিমিয়াম স্মার্টফোনগুলি ভারতের দেশীয় নেভিগেশন সিস্টেম NavIC (নেভিগেশন উইথ ইন্ডিয়ান কনস্টেলেশন) সাপোর্ট করবে। ‘Techade’-এও ভারতের ইলেকট্রনিকস ও আইটি প্রতিমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, আগামী ২০২৫ সালের শেষ নাগাদ সমস্ত স্মার্টফোন NavIC দ্বারা চালিত হবে।

Apple-এর দেখাদেখি Xiaomi, Poco, Oppo, Vivo, এবং OnePlus-ও কিছু মডেলে NavIC-কে অন্তর্ভুক্ত করছে। আসলে ভারতে উৎপাদিত বা ভারতের নকশা করা চিপ ব্যবহার করলে মোবাইল উৎপাদক সংস্থাগুলিকে ‘ক্যাশব্যাক’ দেওয়া হতে পারে বলে সরকারের তরফে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন চন্দ্রশেখর। তিনি স্পষ্ট বলেছেন, সরকার চায় স্মার্টফোন এবং অটোমোবাইল সংস্থাগুলি অন্য GPS-এর পাশাপাশি NavIC ব্যবহার করুক।

আরও পড়ুন: দেখতে দেখতে শেষ হয়ে যাচ্ছে মোবাইল ডেটা? এই উপায়েই হবে বাজিমাত

NAVIC কী?

আমেরিকার GPS, রাশিয়ার GLONASS, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের Galileo, চিনের BeiDou এবং জাপানের QZSS-এর মতোই হতে চলেছে NavIC।

২০০৬ সালে অনুমোদন পেয়েছিল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ISRO-র তৈরি করা NavIC। ২০১১ সালের শেষের দিকে এটি চালু করা যাবে বলে ভাবা হয়েছিল, কিন্তু ২০১৮ সাল পর্যন্ত তা করা যায়নি।

বিশেষজ্ঞদের একাংশের দাবি, NavIC শহুরে এলাকায় যেমন কাজ করবে তেমনই ঘন জঙ্গলেও। iPhone-সহ বিভিন্ন আধুনিক স্মার্টফোনে NavIC থাকলে ভারতীয় ব্যবহারকারীদের সঠিক নেভিগেশন, ম্যাপিং এবং ট্র্যাকিং আরও সহজ হবে। যেখানে GPS দুর্বল বা পাওয়া যায় না, সেখানেও এটি কাজ করতে পারবে।

সামগ্রিক ভাবে, iPhone 15 Pro এবং iPhone 15 Pro Max মডেল এবং অটোমোবাইলের ক্ষেত্রে এই ব্যবস্থা অন্তর্ভুক্ত হলে তা অবশ্যই ভারতের মহাকাশ গবেষণার উন্নতিকে চিহ্নিত করবে।

NavIC ব্যবহার করার সুবিধা—

১. এটি শহুরে এলাকার পাশাপাশি প্রত্যন্ত এলাকাতে GPS-এর চেয়ে বেশি নির্ভুল হতে পারে।

২. দুর্বল GPS সঙ্কেত পাওয়া যায় যেসমস্ত দেশে সেখানেও নেভিগেশনের জন্য এটি বিশেষ ভাবে উপকারী হতে পারে।

৩. NavIC চিপসেটগুলি GPS চিপসেটের চেয়ে কম শক্তি খরচ করবে, ফোনের ব্যাটারি কম খরচ হবে।

৪. NavIC হল একটি আঞ্চলিক নেভিগেশন সিস্টেম। বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে এটি আরও সুরক্ষিত।

MapmyIndia-র সিইও ও কার্যনির্বাহী অধ্যক্ষ রোহন ভর্মা NavIC-কে অন্তর্ভুক্ত করার সরকারি উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন। MapmyIndia যানবাহনে এই বিশেষ ব্যবস্থাকে সমর্থন করছে, একই সঙ্গে মৎস্যজীবীদের জন্য NavIC অ্যাপ তৈরি করতে ISRO-এর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ভাবে কাজ করেছে বলেও তিনি জানান।

First published:

Tags: IPhone, ISRO



Source link

সর্বশেষ - খেলাধুলা