শুক্রবার , ৮ জুলাই ২০২২ | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. ক্যারিয়ার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তরুণ উদ্যোক্তা
  7. ধর্ম
  8. নারী ও শিশু
  9. প্রবাস সংবাদ
  10. প্রযুক্তি
  11. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  12. বহি বিশ্ব
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. মতামত

বিএনপি নেতারা কে কোথায় ইদ করবেন

প্রতিবেদক
bdnewstimes
জুলাই ৮, ২০২২ ৭:২০ অপরাহ্ণ


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ইদ মানে খুশি। ইদ মানে আনন্দ। কিন্তু এই ইদ একেক জনের কাছে একেক রকম। বিশেষ করে রাজনীতিবিদদের ইদ সব সময় এক রকম হয় না। ক্ষমতায় থাকলে তাদের ইদ একরকম, ক্ষমতার বাইরে থাকলে আরেক রকম। টানা ১৬ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকা দেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল বিএনপি নেতাদের ইদ গত কয়েক বছর ধরে কিছুটা হলেও বিবর্ণ ও নিরানন্দে কাটছে।

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া নির্বাহী আদেশে সাময়িক মুক্তি পেলেও অসুস্থতার কারণে গুলশানের ভাড়া বাসা ‘ফিরোজা’র চার দেওয়ালের মধ্যেই থাকতে হচ্ছে তাকে। আর দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ৮ হাজার মাইল দূরে লন্ডনে অবস্থান করছেন। এমন পরিস্থিতিতে থাকছে না দলের পক্ষ থেকে ইদ শুভেচ্ছা বিনিময় আয়োজনও।

তারপরও থেমে থাকবে না বিএনপি নেতাদের ইদ। ইদ উল আজহার আনুষ্ঠানিকতায় পশু কোরবানি যেহেতু গুরুত্বপূর্ণ একটা অনুষঙ্গ, সেহেতু অনেকেই চলে যাবেন নিজ নির্বাচনি এলাকায়। কেউ ইদ করবেন ঢাকায়, কেউ আবার ঢাকা কোরবানি করে চলে যাবেন গ্রামে, কেউ বা গ্রামে কোরবানি দিয়ে চলে আসবেন ঢাকায়। কেউ ইদ করবেন দেশের বাইরে, কেউ আবার কারাগারে।

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ইদ যথারীতি গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’য় হবে। গত ইদে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ স্থায়ী কমিটির সদস্যরা ইদ শুভেচ্ছা বিনিময় করতে এলেও এবার আসবেন কিনা, তা এখনো চূড়ান্ত নয়। তবে পরিবারের সদস্যরা আসবেন খালেদা জিয়ার সঙ্গে ইদ শুভেচ্ছা বিনিময় করতে।

বিগত বছরগুলোর মতো বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ইদ করবেন লন্ডনে। স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান ও কন্যা জাইমা রহমানকে নিয়ে লন্ডনে ইদ করবেন তিনি।

বিএনপির চেয়াপারসনের প্রেসউইং সদস্য শায়রুল কবির খানের দেওয়া তথ্যমতে, ইদের নামাজ শেষে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যরা যাবেন চন্দ্রিমা উদ্যানে। সেখানে জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত ও ফাতেহা পাঠ করবেন তারা।

স্থায়ী কমিটির সদস্য ডক্টর খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমিরুউদ্দিন সরকার, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান সেলিমা রহমান ঢাকায় ইদ করবেন। তবে বরাবরের মতো এবারও স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী ইদের নামাজ পড়বেন চট্টগ্রামে। ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ইদ করবেন সিরাজগঞ্জ। স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য ডক্টর মঈন খান ইদ করবেন আমেরিকায়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহ উদ্দিন আহমেদ ইদ করবেন ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রাজধানী শিলংয়ে। অনুপ্রবেশের দায়ে সেখানে তার বিরুদ্ধে মামলা চলছে। তিনি জামিনে থাকলেও ভারত ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা থাকায় তাকে এবারও সেখানে ইদ করতে হবে।

ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর ও শামসুজ্জামান দুদু নির্বাচনি এলাকায় ইদের নামাজ পড়বেন।

বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, আমানুল্লাহ আমান, তাহসীনা রুশদীর লুনা, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, হাবিব উন নবী খান সোহেল ঢাকায় ইদ করবেন। যুগ্ম মহাসচিব খাইরুল কবির খোকন, মজিবুর রহমান সরোয়ার ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন নির্বাচনি এলাকায় ইদ করবেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার, বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার ও শায়রুল কবির খান ঢাকায় ইদ করবেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সারাবাংলাকে বলেন, ‘পোস্ট কোভিড জটিলতার কারণে বাসাতেই আছি। এবার আর এই শরীর নিয়ে গ্রামে যেতে পারছি না। ঢাকাতেই ইদ করতে হবে।’

‘ইদের দিন শহিদ জিয়ার কবর জিয়ারত করতে যাব। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যরাও যাবেন। আর ম্যাডামের বাসায় যাওয়ার বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত হয়নি’- বলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সারাবাংলা/এজেড/এএম





Source link

সর্বশেষ - খেলাধুলা