সোমবার , ২৭ জুন ২০২২ | ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যারিয়ার
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. তরুণ উদ্যোক্তা
  8. ধর্ম
  9. নারী ও শিশু
  10. প্রবাস সংবাদ
  11. প্রযুক্তি
  12. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  13. বহি বিশ্ব
  14. বাংলাদেশ
  15. বিনোদন

শিশু শিক্ষার্থী শিহাব হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ ও জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি প্রদান

প্রতিবেদক
bdnewstimes
জুন ২৭, ২০২২ ৫:৪৯ অপরাহ্ণ

মোঃ মশিউর রহমান,টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইল শহরের সৃষ্টি স্কুলের আবাসিক ভবনে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র শিহাব মিয়া (১১) কে শ্বাসরোধে হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে সৃষ্টি স্কুলের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা। ২৭ জুন সোমবার বিক্ষোভ মিছিলটি টাঙ্গাইল জেলা শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিচারপ্রার্থী ছাত্রছাত্রীরা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করে। টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি বলেন, হত্যাকারী যত ক্ষমতাধর হোক না কেন, তাকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে। সেইসাথে তিনি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ঘরে ফিরে পড়ালেখায় মনোযোগ দেওয়ার জন্য আহ্বান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মুহাম্মদ সরোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আমিনুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রানুয়ারা খাতুন, টাঙ্গাইল সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন বলেন, এসিল্যান্ড সহ অন্যান্য কর্মকর্তাগন।
২৬ জুন বিকালে টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের নিশ্চিত করেন, ওই ছাত্রকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। সিভিল সার্জন বলেন, টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে শিশুটির ময়নাতদন্ত করা হয়। এ ঘটনায় রবিবার ২৬ জুন বিকালে র‍্যাব ও পুলিশের যৌথ অভিযানে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ’সহ ৯ শিক্ষককে আটক করা হয়। র‍্যাব ১২ সিপিসি ৩ এর কমান্ডার এএসপি এরশাদুর রহমান জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‍্যাব ৭ শিক্ষককে ও সদর থানার পুলিশ দুই শিক্ষককে আটক করেছিল, তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য।
এর আগে গত ২০ জুন শহরের বিশ্বাস বেতকা সুপারি বাগান এলাকায় সৃষ্টি স্কুলের আবাসিক ভবন থেকে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র শিহাবের লাশ উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান সেখানে দায়িত্বরত শিক্ষকরা।
মৃত শিহাব মিয়া টাঙ্গাইল জেলার সখিপুর উপজেলার বেড়বাড়ি গ্রামের প্রবাসী ইলিয়াস হোসেনের ছেলে। ওইদিন শিশুটিকে হত্যার অভিযোগ আনে তার পরিবার। পরে লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পারিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। এ ঘটনায় প্রাথমিক পর্যায়ে ওই দিন টাঙ্গাইল সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়।
এদিকে, শিহাবের লাশ উদ্ধারের শুরু থেকেই তার পরিবার হত্যার অভিযোগ তুলে আসছিলেন। শিহাবকে হত্যার অভিযোগ এনে টাঙ্গাইল শহরে একাধিক ও তার নিজ উপজেলা সখিপুরেও একাধিক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ হয়। টাঙ্গাইল জেলার সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য এলাকায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করা হয়। মৃত শিহাবের ফুফাতো ভাই আল আমিন সিকদার বলেন, ‘ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এসেছে। রিপোর্টে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার বিষয়টি এসেছে। আমরা চাই দ্রুত সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে মূল অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক। অপরদিকে, স্কুলের আবাসিকে শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় মিডিয়ায় খবর প্রকাশে ও পুলিশের বিশেষ ভূমিকা না থাকায় মৃতের পরিবার ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সচেতন মহলেও বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার সৃষ্টি হয়। তবে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও সচেতন মহল ভুক্তভোগী পরিবারের পাশে থাকায় তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তারা।

সর্বশেষ - খেলাধুলা