রবিবার , ২০ আগস্ট ২০২৩ | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. ক্যারিয়ার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তরুণ উদ্যোক্তা
  7. ধর্ম
  8. নারী ও শিশু
  9. প্রবাস সংবাদ
  10. প্রযুক্তি
  11. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  12. বহি বিশ্ব
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. মতামত

Health Care : বর্ষায় বাজার ভরে যায় নদিয়ালী মাছে! স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী? জানুন বিশেষজ্ঞের মত

প্রতিবেদক
bdnewstimes
আগস্ট ২০, ২০২৩ ২:২৪ পূর্বাহ্ণ


দক্ষিণ দিনাজপুর : ঐতিহ্যবাহী আত্রেয়ী নদীর সঙ্গে নদিয়ালী ছোট মাছের সম্পর্ক নিবিড়। বহুকাল থেকেই স্বাদে ও গন্ধে আত্রেয়ীর ছোট ছোট মাছের জনপ্রিয়তা এখনও অব্যাহত। দীর্ঘ কয়েক বছর পরে আত্রেয়ীর বুকে দেখা মিলেছে ময়া, ঢেলা, চাঁদা, ছোট পুঁটি, স্বরপুঁটি, কাঁচকি, কৈ, মৌরলা, কাজলি, পিউলি, বাঁশপাতা, পাতাশি এই সব নদিয়ালী মাছ।এবছর বর্ষাতে ফুঁলেফেপে উঠেছে নদী। আর সেই নদীতেই মিলছে প্রচুর ছোট প্রজাতির নদিয়ালী মাছ। কিন্তু জানেন কি, এই সমস্ত নদিয়ালী মাছ স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী?

বিশেষজ্ঞরা সব সময় এই ছোট মাছই খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।ছোট মাছে আছে প্রচুর ক্যালসিয়াম। কাঁটাসহ ছোট মাছ ক্যালসিয়ামের এক অনন্য উপাদান।এই জাতীয় ছোট ছোট মাছে প্রচুর ক্যালসিয়াম, প্রোটিন এবং ভিটামিন ‘এ’ বিদ্যমান। মানবদেহে দৈনিক প্রচুর ক্যালসিয়ামের চাহিদা থাকে। বিশেষ করে বাড়ন্ত শিশু, গর্ভবতী মা এবং প্রসূতি মায়েদের ক্যালসিয়ামের চাহিদা আরও বেশি প্রয়োজন।

আরও পড়ুন: 

ট্যাংরা মাছ রক্তের স্বল্পতা জনিত রোগ বা দুর্বলতা কাটাতে সাহায্য করে। শরীরে আনে বল। ১০০ গ্রাম ট্যাংরা মাছে থাকে ১০৬ ক্যালোরির শক্তি। ১৯.২ গ্রাম থাকে প্রোটিন, চর্বি থাকে ৬.৫ গ্রাম, ক্যালসিয়াম থাকে ২৭০ মিলিগ্রাম। ছোট মাছ দামে কম বেশি যেমনই হোক, তেমনই পুষ্টিতে ভরপুর। তাই রোজকার পাতে এই সব মাছই রাখার চেষ্টা করুন। সপ্তাহে একদিন বড়ো মাছ খাওয়া যেতেই পারে।

আরও পড়ুন:  দেশের ক্ষুদ্রতম রেলপথ কোনটি জানেন? ভাড়া শুনলে চমকে যাবেন!

ছোট মাছ স্বাদে তুখোড়। তবে ময়া মাছ কাঁটার ভয়ে অনেকেই খেতে চান না। ১০০ গ্রাম মাছের মধ্যে ২০.৩ গ্রাম প্রোটিন থাকে। এছাড়াও থাকে ক্যালশিয়াম, আয়রন, ফসফরাস এবং ভিটামিন এ। যা আমাদের দৃষ্টিশক্তি ভাল রাখে। মৌরলা মাছও আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুব ভাল। তবে এক্ষেত্রে নদীর পরিবর্তে পুকুরের মৌরলা হলে আরও ভাল। এতে ক্যালশিয়াম থাকে ঠাসা। থাকে প্রোটিনও। পাশাপাশি,হাড় ও দাঁত গঠনে ক্যালসিয়াম অত্যন্ত দরকারি। ১০০ গ্রাম পুঁটি মাছে ১৪৪ ক্যালোরির শক্তি, যা শরীরকে শক্তি যোগায়। ২.৪ গ্রাম থাকে চর্বি, প্রোটিন থাকে ১৮.১ গ্রাম থাকে ১১০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম। পুঁটি মাছ দাঁত ও হাড়ের গঠন ঠিক রাখতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন আমাদের ক্যালসিয়াম-সমৃদ্ধ ছোট মাছ খাওয়া উচিত।

সুস্মিতা গোস্বামী

দক্ষিণ দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

Published by:Piya Banerjee

First published:

Tags: Fish, Health care, South Dinajpur News



Source link

সর্বশেষ - খেলাধুলা