শনিবার , ৫ আগস্ট ২০২৩ | ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. ক্যারিয়ার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তরুণ উদ্যোক্তা
  7. ধর্ম
  8. নারী ও শিশু
  9. প্রবাস সংবাদ
  10. প্রযুক্তি
  11. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  12. বহি বিশ্ব
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. মতামত

রোটারি ক্লাব অব চিটাগাং ইস্ট এর ইনস্টলেশনে এমএ মালেক

প্রতিবেদক
bdnewstimes
আগস্ট ৫, ২০২৩ ৮:৫৬ অপরাহ্ণ

মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর মাঝেই খুঁজে পাওয়া যায় ভালোবাসা
বেষ্টিত হয়ে বহুল আকাঙ্ক্ষিত কাল-কালান্তরে বেঁচে থাকার স্বপ্ন

স্বাধীন বাংলাদেশে প্রকাশিত সর্বপ্রথম সংবাদপত্র দৈনিক আজাদী সম্পাদক ও একুশে পদকপ্রাপ্ত বর্ষিয়ান সাংবাদিক এম এ মালেক বলেছেন, মানুষের আজন্ম ইচ্ছে হলো-শতসহস্র বছর বেঁচে থাকতে চায়। এই চাওয়ার নামই আশা। আর, যুগের পর যুগ ধরে মানুষের মনের গহীন কোণে স্থান পাবার নিরন্তর বাসনা প্রাগৈতিহাসিক কাল হতে মানব সমাজের আকাঙ্ক্ষা। নিজেকে তৃপ্ত সন্তুষ্ট এবং সসম্মানে দেখবার এ আশা-আকাঙ্ক্ষার ভেলায় চড়েই মানুষ পাড়ি দিয়েছে হাজার-লক্ষ বছর। বিশেষতঃ মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর মাঝেই খুঁজে পাওয়া যায় ভালোবাসা বেষ্টিত হয়ে বহুল আকাঙ্ক্ষিত কাল-কালান্তরে বেঁচে থাকার স্বপ্ন।
তিনি ‘Creat Hope in the World’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মানবতার প্রতি নিবেদিত আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রোটারি ক্লাব অব চিটাগং ইস্ট-এর ২২তম ইনস্টলেশন অনুষ্ঠান সফল ও সার্থকতা কামনা করে আরো বলেন, হাতটা বাড়াতে হবে উভয়কে। যে দেবে এবং নেবে। এই দেয়া-নেয়ার সম্প্রীতির মধ্য দিয়ে একটি সাম্যের পৃথিবী গড়ার যে সংগ্রাম লায়ন্স এবং রোটারি ক্লাব করে যাচ্ছে তা এক কথায় অভূতপূর্ব।
একই আয়োজনে রোটারি গভর্নর ইঞ্জিনিয়ার মোঃ মতিউর রহমান আরআই প্রেসিডেন্ট ঘোষিত এবারের ‘এরিয়া অব ফোকাস’ বাস্তবায়নে সকল ক্লাবের সহযোগিতা প্রত্যাশা করে বলেন, ৩২৮২’তে প্রায় ১৮৩টি ক্লাব রয়েছে। প্রত্যেক ক্লাব যদি গৃহহীনদের জন্য ন্যুনতম ১টি গৃহ নির্মাণের দায়িত্ব নেয় প্রায় দু’শ গৃহ পাবে সুবিধাবঞ্চিতরা। তাঁর সময়কালে ঘোষিত কর্মসূচি বাস্তবায়নে সবার সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন গভর্নর।
তিনি চট্টগ্রামে লায়ন্সের সিগনেচার প্রজেক্ট লায়ন্স চক্ষু হাসপাতালের উদাহারণ দিয়ে অনুরুপভাবে সিলেট এবং কুমিল্লায় রোটারির হাসাপাতাল থাকলেও চট্টগ্রামে না থাকায় তাঁর সময়কালে এ ধরনের উদ্যোগ নেয়ার ঘোষণা দেন।
রোটারি ক্লাব অব চিটাগাং ইস্ট এর ২২তম ইনস্টলেশন সিরোমনিতে এমএ মালেক প্রধান অতিথি এবং মতিউর রহমান গভর্নরের বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
নগরীর আগ্রাবাদস্থ গ্রীণ শ্যাডো রেস্তোরাঁয় ৪ আগস্ট রাত ৮ টায় জমকালো এ আয়োজনে বিভিন্ন পেশায় সেবা প্রদানের মাধ্যমে যাঁরা সমাজে বিশেষ অবদান রাখছেন তাঁদের মধ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মাহফুজুর রহমান, সিএমপির এডিশনাল পুলিশ কমিশনার আসিফ মহিউদ্দিন, দেশ টিভির ব্যুরো প্রধান সাংবাদিক আলমগীর সবুজ, শিশু বিশেষজ্ঞ পিপি ডা. জাকারিয়া হোসাইন, অর্থোপেডিক সার্জন ডা. জাবেদ জাহাঙ্গীর তুহিন, শিক্ষক মোঃ ফারুক ইসলাম, দৈনিক সমকালের স্টাফ রিপোর্টার সাংবাদিক আহমেদ কুতুব ও নিউজনাউ২৪ এর স্টাফ রিপোর্টার সাংবাদিক পার্থ প্রতীম নন্দীকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।
এরপর, চলতি রোটাবর্ষের প্রজেক্ট অনুযায়ী দু’জন পঙ্গু ব্যক্তি যথাক্রমে মোঃ শাহজাহান ও উইলিয়াম ডি সুজাকে ১জোড়া হুইল চেয়ার এবং উপলব্ধি ফাউন্ডেশনে ক্লাবের পক্ষ থেকে ১ জন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট আয়কর আইনজীবী রোটারিয়ান জয়শান্ত বিকাশ বড়ুয়ার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ১ জন সুবিধাবঞ্চিত মেয়ের ১বছরের বৃত্তি বাবদ ১লক্ষ ২০ হাজার টাকার চেক তুলে দেয়া হয় উপলব্ধির প্রতিনিধির হাতে।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন প্রোগ্রাম চেয়ার ক্লাবের অতীত সুপার স্টার প্রেসিডেন্ট ও বর্তমান সার্ভিস প্রজেক্ট ডিরেক্টর চট্টগ্রামের প্রথম ক্লিনিক্যাল পুষ্টিবিদ হাসিনা আক্তার লিপি।
ক্লাব প্রেসিডেন্ট নাসিমা আখতারের সভাপতিত্বে ও ক্লাব সেক্রেটারি লেখক-সাংবাদিক রোটারিয়ান শওকত বাঙালির সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন পিডিজি আব্দুল আহাদ, পিডিজ শহীদ আহমেদ চৌধুরী, পিডিজি প্রফেসর ড. তৈয়ব চৌধুরী, এসিস্ট্যান্ট গভর্নর জয় দেব চন্দ্র দাশ জয়। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন পিপি রাকিবুল ইসলাম। ইনভোকেশান পাঠ করান রোটারিয়ান জোবায়দুর রহমান সাকিব। পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন আলহাজ্ব শওকত আল-আমিন।
অনুষ্ঠানে ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮২-এর ফাস্টলেডি অতিরিক্ত কর কমিশনার শামিনা ইসলামসহ প্রায় ৫০টি ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ও সেক্রেটারি এবং ডিস্ট্রিক্ট অফিসিয়াল নেতৃবৃন্দ এবং ইস্ট এর চার্টার্ড প্রেসিডেন্ট এ,কে এম সাইদুল ইসলাম বাবু, পিপি এ.আর খান, পিপি কামরুল ইসলাম, পিপি লে.কর্নেল অব. এবিএম জয়নুর রশীদ, রোটারিয়ান নীলুফার আজাদ,
পিপি মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ্, রোটারিয়ান অধ্যক্ষ শ্যামল মজুমদার, রোটারিয়ান মিজানুর রহমান, রোটারিয়ান বৃজেট ডায়েস, রোটারিয়ান মোঃ মামুন চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে দেশের খ্যাতিমান যাদুশিল্পী রাজীব বসাক অনবদ্য যাদুপ্রদর্শনীর মাধ্যমে দর্শকদের বিমোহিত করেন। জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। র‍্যাফেল ড্র ও ডিনারের মধ্য দিয়ে রাত প্রায় ১১টা নাগাদ আয়োজনের সমাপ্তি ঘটে।
অনুষ্ঠান উপলক্ষে তরী’র বিশেষ সংখ্যা প্রকাশিত হয়।

সর্বশেষ - খেলাধুলা