মঙ্গলবার , ২২ আগস্ট ২০২৩ | ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. ক্যারিয়ার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তরুণ উদ্যোক্তা
  7. ধর্ম
  8. নারী ও শিশু
  9. প্রবাস সংবাদ
  10. প্রযুক্তি
  11. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  12. বহি বিশ্ব
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. মতামত

সাংবাদিক হাবিবুর রহমানের মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের শোক

প্রতিবেদক
bdnewstimes
আগস্ট ২২, ২০২৩ ৮:০৪ অপরাহ্ণ


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দৈনিক যুগান্তরের সিনিয়র রিপোর্টার হাবিবুর রহমান খানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ শোক জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘হাবিবুর রহমান খানের মৃত্যুতে তার পরিবার—পরিজনদের ন্যায় আমিও গভীরভাবে সমব্যথী। স্বাধীন সাংবাদিকতায় বিশ্বাসী মরহুম হাবিবুর রহমান খান বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের লক্ষ্যকে সামনে রেখে নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন। তিনি ছিলেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক, প্রাজ্ঞ, সত্যানুসন্ধানী ও নির্ভিক সাংবাদিক। সততা, নিষ্ঠা ও কর্তব্যবোধ ছিল তার দায়িত্ব পালনের অন্তর্নিহিত শক্তি।’

শোক বার্তায় হাবিবুর রহমান খানের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং শোকাহত পরিবারবর্গ, আত্মীয়স্বজন, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

দলের মহাসচিব ছাড়াও বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক জহির উদ্দিন স্বপন, সদস্য সচিব শহিদ উদ্দিন চৌধুরী পৃথকভাবে শোক প্রকাশ করেন। তারা হাবিবুর রহমান খানের বিদেহী আত্মর মাগফেরাত কামনা এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) বিকেল হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাবিবুর রহমান খান মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪২ বছর।

পরিবারের সদস্যরা জানান, বিকাল ৪টার দিকে হঠাৎ বুকের ব্যথায় অসুস্থ বোধ করছিলেন। দ্রুত তাকে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনে নিয়ে যাওয়ার পরে চিকিৎসকরা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানান সে আর নেই। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, এক মেয়ে রেখে গেছেন।

পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন মিরপুর শাইনপুকুর হাউজিং জামে মসজিদে বাদ এশা জানাজা শেষে মিরপুর শহিদ বুদ্দিজীবী কবরাস্থানে হাবিবুর রহমান খানকে দাফন করা হবে।

মৃত্যৃরি সংবাদের শুনে হাবিবুর রহমানের স্ত্রী ফারজানা মাহমুদ সনির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি তাকে সাত্বনা দেন এবং তার সন্তানদের খোঁজ-খবর নেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করে হাবিবুর রহমান খান সাংবাদিকতাকে পেশা হিসেবে নিয়ে জাতীয় দৈনিকে কাজ শুরু করেন। তার মৃত্যুর সংবাদে দৈনিক যুগান্তরে সহকর্মীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

হাবিবুর রহমান খান জাতীয় প্রেসক্লাব, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন ও ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্য ছিলেন।

সারাবাংলা/এজেড/এনইউ





Source link

সর্বশেষ - খেলাধুলা