শুক্রবার , ১১ নভেম্বর ২০২২ | ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যারিয়ার
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. তরুণ উদ্যোক্তা
  8. ধর্ম
  9. নারী ও শিশু
  10. প্রবাস সংবাদ
  11. প্রযুক্তি
  12. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  13. বহি বিশ্ব
  14. বাংলাদেশ
  15. বিনোদন

উদ্যানের চারদিকে ঘুরছে লাখো মানুষ

প্রতিবেদক
bdnewstimes
নভেম্বর ১১, ২০২২ ৪:৫৪ অপরাহ্ণ


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: পারভেজ আহমেদ রাফি। চট্টগ্রাম ইপিজেড এলাকা থেকে শুক্রবার (১১ নভেম্বর) ভোর ৬টায় রাজধানী ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন। উদ্দেশ্য ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত যুব লীগের মহাসমাবেশে যোগ দেওয়া। কিন্তু দুপুর ২টা পার হয়ে গেলেও সমাবেশস্থলে ঢুকতে পারেননি তিনি। তার সঙ্গী-সাথীরাও ঢুকতে পারেননি। পুরো সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চারপাশে এক রাউন্ড দিয়ে অবশেষে দুপুর আড়াইটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) বসে জিরিয়ে নিচ্ছিলেন।

দুপুর ২টা ৪০ মিনিটে টিএসসির রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে দাঁড়িয়ে কথা হয় পারভেজ আহমেদ রাফির সঙ্গে। এ প্রতিবেদককে তিনি বলেন, ‘আসিফ মাহমুদ (চট্টগ্রাম জেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী) ভাইয়ের নেতৃত্বে আমরা প্রায় দেড় শ’জন ঢাকায় এসেছি। আমাদের ইচ্ছা ছিল প্রধানমন্ত্রীকে খুব কাছ থেকে দেখব। কিন্তু বারবার চেষ্টা করেও ভেতরে ঢুকতে পারিনি। যেহেতু সবাইকে এক সঙ্গে থাকতে হবে, তাই ‘ইনডিভিজুয়ালি’ ঢুকে পড়ার কোনো সুযোগ নেই। সুযোগ পেলে ভাইয়ের (আসিফ মাহমুদ) নেতৃত্বে আমরা সবাই এক সঙ্গে ঢুকব।

যুব মহাসমাবেশ: উদ্যানের চারদিকে ঘুরছে লাখো মানুষ

শুধু পারভেজ আহমেদ নন, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আসা যুব লীগের এ রকম হাজার হাজার নেতাকর্মী, সমর্থক, শুভাকাঙ্ক্ষী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কাছ থেকে দেখার বাসনায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চারিদিকে শুধু ঘরছেন। প্রবেশের জন্য সংরক্ষিত গেটগুলোর নিরাপত্তা বলয় পেরিয়ে অনেকের পক্ষেই মূল ভেন্যুতে ঢোকা সম্ভব হচ্ছে না।

ফলে হাইকোর্ট মোড়, কদম ফোরায়ারা, শিক্ষা চত্বর, হাইকোর্ট মাজার গেট, দোয়েল চত্বর, চার নেতার মাজার গেট, কালি মন্দির গেট, বাংলা একাডেমি, মেট্টোরেল গেট-১, মেট্রোরেল গেট-২, মেট্রোরেল স্টেশন গেট এবং ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন ও স্বাধীনতা জাদুঘর গেটের আশপাশ দিয়ে সারাদিন লাখ লাখ নেতাকর্মী শুধু ঘুরছেন। বিশেষ করে প্রবেশ গেট সম্পর্কে সম্যক ধারণা না থাকায় বাইরে থেকে আসা নেতাকর্মী সমর্থকরা চারিদিকে ঘুরে ঘুরে ক্লান্ত হচ্ছেন।

দুপুর ২টা ৩৮ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন সোহরাওর্দী উদ্যানে পৌঁছে সমাবেশ উদ্বোধন করছিলেন, তখন চার নম্বর গেট (মেট্রোরেল গেট-১, মাজার গেটের পরের গেট) দিয়ে ভেতরে প্রবেশের জন্য হাজার হাজার লোক প্রতিযোগিতায় নামে। এই গেটে রাখা আটটি প্রবেশপথের আর্চওয়ে দিয়ে স্রোতের মতো মানুষ ঢুকছিল। তারপরও তা ছিল প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল।

যুব মহাসমাবেশ: উদ্যানের চারদিকে ঘুরছে লাখো মানুষ

একটু উত্তর-পশ্চিমে এগিয়ে ৩ (রমনা কালি মন্দির গেট) এবং ২ (মেট্রোরেল স্টেশন গেট) নম্বর গেটের অবস্থাও প্রায় একই রকম। সমাবেশে প্রধানমন্ত্রীর সশরীরে উপস্থিতির ঘোষণা শোনা মাত্র ভেতরে প্রবেশের ইচ্ছে বহুগুণ বেড়ে যায় যুবলীগ কর্মীদের। কিন্তু যে সমাবেশে প্রধান অতিথি প্রধানমন্ত্রী, সেখানে যে সহজে প্রবেশ করা যায় না, সে বিষয়টি হয়তো মাথায় রাখতে পারেননি ঢাকার বাইরে থেকে আসা যুব লীগের কর্মী সমর্থকেরা।

২ নম্বর গেটের (মেট্রোরেল স্টেশন গেট) সামনে দাঁড়িয়ে কথা হয় টাঙ্গাইল থেকে আসা শহিদুল ইসলামের সঙ্গে। এ প্রতিবেদককে তিনি বলেন, ‘ভেবেছিলাম সমাবেশে যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কাছ থেকে দেখব। এখানে এসে দেখলাম টি ভেতরে ঢোকা খুবই কঠিন। কয়েকবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছি। এখন আর ভেতরে যাওয়ার সময় নেই। ফেরার বাসে উঠে পড়তে হবে।’

যুব মহাসমাবেশ: উদ্যানের চারদিকে ঘুরছে লাখো মানুষ

সরেজমিনে দেখা গেছে, বাইরে থেকে আসা নেতাকর্মীরা নিয়ম মেনে নির্ধারিত গেট দিয়ে ঢোকা চেষ্টায় থাকলেও ঢাকার নেতাকর্মীরা বাতলে নিয়েছেন বিকল্প পথ। এদের অনেকেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রাচীর ডিঙিয়ে ভেতরে প্রবেশ করছেন। অবশ্য এরা ভেতরে গিয়ে বেশিদূর এগোতে পারবে না। ভেতরে যে কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করা হয়েছে, সেখানে গিয়েই থেমে যেতে হবে তাদেরকে। কেবল মাত্র নির্দিষ্ট গেট দিয়ে ঢুকুলেই মূল ভেন্যুতে ঢোকার সুযোগ মিলবে-এমনটি জানানো হয়েছে আয়োজক এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে।

সারাবাংলা/এজেড/এনইউ





Source link

সর্বশেষ - খেলাধুলা