মঙ্গলবার , ২২ আগস্ট ২০২৩ | ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. ক্যারিয়ার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তরুণ উদ্যোক্তা
  7. ধর্ম
  8. নারী ও শিশু
  9. প্রবাস সংবাদ
  10. প্রযুক্তি
  11. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  12. বহি বিশ্ব
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. মতামত

ইবি ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু: তৃতীয় দফায় মানববন্ধন

প্রতিবেদক
bdnewstimes
আগস্ট ২২, ২০২৩ ৪:১০ অপরাহ্ণ


ইবি করেসপন্ডেন্ট

ইবি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি এবং আইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনা বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী নওরীন নুসরাত স্নিগ্ধার রহস্যজনক মৃত্যুর সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবিতে তৃতীয় দফায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং সোসাইটির আয়োজনে ‘মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব’ ম্যুরাল চত্বরে এ মানববন্ধন করা হয়। এর আগে, ১২ আগস্ট ওই ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যুর সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবিতে প্রথম দফায় মানববন্ধন করেন আইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থীরা। পরবর্তীতে ১৬ আগস্ট একই দাবিতে মানববন্ধন করেন ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ‘বন্ধন-৩২’ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।

মানবন্ধনে ডিবেটিং সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক নাজমুস সাকিবের সঞ্চালনায় শাপলা ফোরামের সভাপতি ও ডিবেটিং সোসাইটির মডারেটর অধ্যাপক ড. মামুনুর রহমান, শাপলা ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান, ডিবেটিং সোসাইটির সাবেক সহকারী মডারেটর ও ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ হোসেন জাহিদ এবং ডিবেটিং সোসাইটি সহকারী মডারেটর আইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনা বিভাগের সভাপতি সাহিদা আখতার আশা এবং ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এস এম শোয়েবসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

মানবন্ধনে বক্তারা বলেন, আমরা নওরীনের বাবার খোলা চিঠির মাধ্যমে জানতে পারি, তার শ্বশুর বাড়ির লোকেরা তাকে পড়াশোনা না করে দ্রুত বাচ্চা নেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন। তার বাবা-মা তার সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলেন, কিন্তু তার স্বামী তাদের সন্ধ্যা ৬টার পর আসতে বলেছিলেন। ঠিক সেই সময়ই তার মৃত্যু হয়। এর মধ্যে আসলে কি রহস্য বিদ্যমান? তা আমরা জানতে চাই। আমরা চাই তার মৃত্যুর সুষ্ঠু তদন্ত উন্মোচন হোক এবং তার মৃত্যুর সঙ্গে জড়িত সকলকে শাস্তির আওতায় আনা হোক। আমরা আর কোনো নওরীনকে হারাতে চাই না।

অধ্যাপক ড. মামুনুর রহমান বলেন, ‘নওরীনকে দেখে সবসময় একটা পজিটিভ ধারণা আসত। নওরীন ছিল বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। সে সবখানেই তার বহুমুখী প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছে। নওরীন আত্মহত্যা বিরোধী বিভিন্ন সভা-সেমিনার ও পত্রিকায় লেখালেখি করত। সে টিভি বিতার্কিক ছিল। নওরীন আত্নহত্যা করবে এটা বিশ্বাসই হয় না। কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে? আমরা তার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।’

অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান বলেন, ‘নওরীনের মৃত্যুটি আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল, প্রমাণ হোক বা না হোক। আমরা এর আগে শুনেছি তার পরিবার বিচারের জন্য অনেকের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে, কিন্তু বিচারের কার্যক্রম শুরু করতে পারছিল না। তবে গতকাল দেখলাম আদালত মামলাটি আমলে নিয়েছে এবং সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে উপস্থাপনের জন্য নির্দেশ দিয়েছে। এ ঘটনাটির একটি বিশ্বাসযোগ্য ও গ্রহণযোগ্য তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত চিত্রটি ফুটে উঠুক।’

প্রসঙ্গত, বিয়ের মাস না পেরুতেই গত ৮ আগস্ট স্বামীর বাসার ছয় তলা বিশিষ্ট ভবনের ছাদ থেকে পড়ে মারা যান নওরীন। এত আগে গত ২১ জুলাই তিনি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

সারাবাংলা/এনএস





Source link

সর্বশেষ - খেলাধুলা